কুমিল্লায় চারমাসের শিশুকে হত্যা চেষ্টা করলো সৎ মা

(শাহীন আলম, চৌদ্দগ্রাম)
সৎ মায়ের রোষানলের শিকার চার মাস বয়সী শিশু আলামিন। বুধবার বিকেলে তাকে ঘুমের মধ্যে এসিড জাতীয় খাবার খাইয়ে দেয়ায় জিহ্বাসহ মুখের ভিতর নানা ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। তবে কে কাজটি করেছে স্বীকার করছে না কেউ। আলামিনের অবস্থা বুঝতে পেরে তাকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় মা কুসুম বেগম। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সন্ধ্যায় তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশু আলামিন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার মুন্সিরহাট ইউনিয়নের দেড়কোটা গ্রামের জহিরুল হকের পুত্র।
জানা গেছে, বুধবার বিকেলে আলামিনকে তার মা কুসুম বেগম বিছানায় ঘুমিয়ে রাখে। কিছুক্ষণ পর ঘুমের মধ্যে তাকে কে বা কারা এসিড জাতীয় কিছু খাইয়ে দেয়। কিছুক্ষণ পর আলামিনের চিৎকার শুনে মা এসে দেখে তার মুখের অবস্থা ভালো নয়। এ সময় পাশের রুমে ছিলেন আলামিনের সৎ মা জান্নাত আক্তার। তাৎক্ষণিক আলামিনকে পরিবারের লোকজন উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
আলামিনের মা কুসুম বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে অভিযোগ করেন, সতিন জান্নাত আমার ছেলেকে বিষ জাতীয় কিছু খাইয়ে দিয়েছে। এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত ডাক্তার কাজী আবদুল মমিন বলেন, শিশুটিকে কেউ এসিড জাতীয় কোন খাবার খাওয়ানোর ফলে তার শাসকষ্ট বেড়ে যায়। তার মুখমন্ডল ও জিহ্বাসহ নানা সমস্যা দেখা যাচ্ছে।
স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোঃ মাহফুজ বলেন, শিশু আলামিনের মায়ের সতিন তাকে কোন কিছু খাইয়ে দিয়েছে বলে শুনেছি।

 

এই বিভাগের আরও খবর

It's only fair to share...Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

এই সংবাদটি নিয়ে আপনার মূল্যবান মতামত জানান: